বাংলাদেশের হিন্দুদের এক পা ভারতে!?

লিখেছেনঃ বিপ্লব পাল

মুসলমানদের মধ্যে একটা কথা খুব করে প্রচলিত আছে – বাংলাদেশের হিন্দুদের এক পা ভারতে! বাংলাদেশের মুসলমানরা ধরেই নেয় যে, বাংলাদেশের প্রতিটা হিন্দু হলো ভারতের দালাল। তারা প্রচণ্ড ভারতপ্রেমী, সুযোগের অপেক্ষায় থাকে, কখন ভারতে টাকা পাচার করতে পারবে, এবং এক পর্যায়ে তারা নিজের জন্মভূমি ছেড়ে ভারতের উদ্যেশ্যে পাড়ি জমায়। –মুসলমানদের মধ্যে এই কথাগুলো বেশ ভালো করেই চালু আছে।

কিন্তু মুসলমানরা কখনো এই কথা ভেবে দেখেছে, বাংলাদেশের হিন্দুরা কেন তাদের নিজের জন্মভূমি, ভিটেমাটি ত্যাগ করে ভারতে চলে যেতে বাধ্য হয়? তবে এতে মুসলমানদের কিছুই যায় আসেনা, তারা ধরেই নেই হিন্দুদের মধ্যে ‘দেশপ্রেম’ নেই এবং তারা ভারতে চলে গেলে বরং খুশিই হয়!

আরেকটি প্রশ্ন হলো, বাংলাদেশের কয়জন হিন্দু তার বিষয়সম্পত্তি, জায়গাজমি বিক্রি করে তার সঠিক মূল্য পায়? বিক্রির কত পার্সেন্ট টাকা শেষ পর্যন্ত হাতে পায়? আমি জানি এর সদুত্তর আমাদের দেশের কোন মুসলমানই দিতে পারবেন না!

যা বলছিলাম, বাংলাদেশের হিন্দুদের এক পা ভারতে থাকে- হিন্দুরা বাংলাদেশে কখনোই নিরাপদে নেই, তারা নিজ সম্পত্তি, সুখ, সব কিছু ত্যাগ করে প্রাণের ভয়ে ভারতে পালায়। তাদের জন্য ভারত একটি ভিনদেশ, সেখানে গিয়ে যে তারা অনেক ভালো থাকে তা কিন্তু নয়, তবুও প্রাণরক্ষায় তারা ভারতে পাড়ি জমায়।

বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর মুসলমানদের অত্যাচারের ঘটনা কারোরই অজানা নয়। বাংলাদেশে বসবাসরত প্রতিটি হিন্দু, হ্যাঁ প্রতিটি হিন্দু,  তার জীবনের কোন না কোন সময়, কোন না কোন ভাবে মুসলমানদের দ্বারা অত্যাচারের শিকার হয়েছে, এবং হচ্ছে। সেটি হোক জায়গা সম্পত্তি বিষয়ক, সামাজিক কর্মকাণ্ডে কিংবা কর্মক্ষেত্রে, প্রতিটি জায়গায়ই তারা বঞ্চিত, নিগৃহীত হয়ে আসছে এবং হচ্ছে। এইতো কিছুদিন আগেই খবরে দেখলাম – “মৌলভিবাজারে ধর্মান্তরিত হতে হিন্দু পরিবারকে হুমকি দেয়া হয়েছে”। এভাবে বাংলাদেশে প্রতিনিয়তই হিন্দুরা শিকার হয় নানা ধরনের লাঞ্ছনার, হুমকির। কিন্তু মুসলমানদের তাতে কি যায় আসে?

শুধু হিন্দুরা নয়, সেসব মুসলমানের সামর্থ আছে, তারাও পারলে বাংলাদেশ ত্যাগ করে। যারা ইউরোপ-আমেরিকা বা বাংলাদেশের চেয়ে ভালো দেশে যেতে পারছে, তারা কেউ-ই দেশে ফিরতে চায় না, বরং পরিবারের আর সবাইকেও দেশের বাইরে নিয়ে যায়। কিন্তু জানের মায়ায় দেশ ছাড়ার ব্যাপারে দোষটা হয় শুধু হিন্দুদের।

আর টাকা পাচার? বাকিসব ধনী মুসলমানদের কথা বাদ-ই দিলাম–এক শেখ পরিবারের বেয়াই নুলা মুসার যে পরিমান টাকা দেশের বাইরে আছে, দেশের সব হিন্দুদের বিক্রি করলেও কি তার সমান হবে? তাও দোষ শুধু হিন্দুদের বেলাতেই!

বাংলাদেশের মুসলমানদের প্রতি আমার আহ্বান, এসব হিপোক্রেসি থেকে বের হোন, বাংলাদেশের প্রতিটি হিন্দু যে কত অসহায়, তা কেবলমাত্র হিন্দুরাই জানে। তাদেরকে লাঞ্ছিত না করে তাদের প্রতি দায়িত্বশীল হোন। এটা তাদেরও দেশ, তারাও এই দেশেই সুখে শান্তিত বসবাস করতে চায়। এবং শুধু আপনারাই পারবেন এই বাংলাদেশকে আবার তাদের বসবাসযোগ্য করে গোড়ে তুলতে। জানি হয়তো অনেক সময় লাগবে, লাগুক! তাও বাংলাদেশের হিন্দুরা একটু নির্ভয়ে বসবাস করুক, এটাই আমার কামনা।